Search

নকটার্ন

শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক ওয়েবম্যাগ

Category

সঙ্গীত

যৌবরাজিক পদাবলি :: সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ

 

painting-232কবিকে বলা হয় ভাষার অধিপতি। ভাষার অনুগামী যে- কোনো শিল্প-শাখায় তাই কবিরা যুগে যুগে যখনই হাত দিয়েছেন, তাদের হাতে সেই শাখা ফুলে-ফসলে আলাদাভাবেই তাৎপর্যময় এক মাত্রায় শোভিত হয়েছে।

প্রসঙ্গসূত্রে আমরা গান, গীতিকবিতার দিকে তাকালেই দেখতে পারি, এক সুদীর্ঘকাল এইখানে ছিল কবিদের একচেটিয়া আধিপত্য। ওরাল ট্র্যাডিশনের বাইরে কবিতাকে যখন লেখ্যরূপে বিরাজ করতে হয়েছে, তখন গানের সাথে কবিদের সেই বাঁধন কিছু শিথিল হলেও আজও একেবারে নিঃশেষ হয়ে যায়নি। বরং গানের কথা নির্মাণে সবসময়ই কবির লেখা উৎকর্ষের দিক দিয়ে বিশিষ্ট। ফলে, ‘কবির লেখা গান’র ব্যাপারে বহুবিধ সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, শৈল্পিক কারণে নকটার্ন বিশেষ মাত্রায় আগ্রহী। Continue reading “যৌবরাজিক পদাবলি :: সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ”

Advertisements

দোজখের গান অথবা তনুর জন্য এপিটাফ :: সেলিম রেজা নিউটন

1447161051_thকবিকে বলা হয় ভাষার অধিপতি। ভাষার অনুগামী যে- কোনো শিল্প-শাখায় তাই কবিরা যুগে যুগে যখনই হাত দিয়েছেন, তাদের হাতে সেই শাখা ফুলে-ফসলে আলাদাভাবেই তাৎপর্যময় এক মাত্রায় শোভিত হয়েছে।

প্রসঙ্গসূত্রে আমরা গান, গীতিকবিতার দিকে তাকালেই দেখতে পারি, এক সুদীর্ঘকাল এইখানে ছিল কবিদের একচেটিয়া আধিপত্য। ওরাল ট্র্যাডিশনের বাইরে কবিতাকে যখন লেখ্যরূপে বিরাজ করতে হয়েছে, তখন গানের সাথে কবিদের সেই বাঁধন কিছু শিথিল হলেও আজও একেবারে নিঃশেষ হয়ে যায়নি। বরং গানের কথা নির্মাণে সবসময়ই কবির লেখা উৎকর্ষের দিক দিয়ে বিশিষ্ট। ফলে, ‘কবির লেখা গান’র ব্যাপারে বহুবিধ সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, শৈল্পিক কারণে নকটার্ন বিশেষ মাত্রায় আগ্রহী।

তারই সূত্র ধরে, এই আয়োজন। এর ধারাবাহিকতা বজায় রাখার চেষ্টা আমরা করবো। আমরা চেষ্টা করবো এমন কিছু লেখার একটা ছোট্ট সংগ্রহ দাঁড় করাতে। এই আয়োজনে প্রকাশিত যে-কোনো লেখাই লেখকের অনুমতি ছাড়া ব্যবহার আইনগত ভাবেই নিষিদ্ধ ও শাস্তিযোগ্য। এর সকল সত্ত্ব লেখকের।-   নকটার্ন

                              ____________________________________________________

দোজখের গান

রাত্রি আন্ধার, বন্দুকের ঝোপে
টর্চলাইটে জ্বালা ত্রাসিত চোখ
দেখছে মেয়েটার, একলা মেয়েটার,
ওড়না-ছেঁড়া-থ্যাঁতা দেহে দোজখ।

রাস্তাটার ধারে নিহত চোখ জুড়ে
অত্যাচার, ধর্ষণের দাগ;
রাষ্ট্র-রাক্ষস বলাৎকার করে
চলেছে সবকিছু— সর্বভাগ।

সময় দিঠিহীনা, অবশ মনোবীণা
বাজছে দিশাহারা সব তারে
— “বিচার”, “ফাঁসি চাই”— শুনব আর কত?
কি চাই, কার কাছে, করজোড়ে?

বরং ঠিক করো, তুমি কি করবে
ঠেকাতে ধর্ষণ, খুন-তৃষা।
নাকি এখনও বসে, অপেক্ষার বশে
থাকবে বড় হুজুরের আশায়?

ততক্ষণ ধরে অন্ধকার জুড়ে
হত ও বিক্ষত তনুর চোখ
দেখবে আমাদের ভীত ও বিব্রত
ভবিষ্যতহীন দেশে দোজখ।

পার্টি অফিস: ২৮শে মার্চ ২০১৬

Continue reading “দোজখের গান অথবা তনুর জন্য এপিটাফ :: সেলিম রেজা নিউটন”

Create a free website or blog at WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: